Breaking News
Home | বিডিটুডে | ‘এতো ভয়ানক ঘটনা আগে কখনও দেখিনি’

‘এতো ভয়ানক ঘটনা আগে কখনও দেখিনি’

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমুল ইউনিয়নের আলিয়ারহাটের উত্তরে ও গাঙ্গনই নদীপাড়জুড়ে রয়েছে বিস্তীর্ণ বোরোর ধানক্ষেত। এলাকার পশ্চিমে ফেনিগ্রাম। পূর্বে ডাবইর আর উত্তরে কিচক ও দক্ষিণে বাদলাদিঘী। চার গ্রামের মাঝখানে বিশাল এই মাঠটিকে স্থানীয়দের ভাষায় ‘ডাবইর পাথার’ নামেই সর্বাধিক পরিচিত পেয়েছে বহুকাল আগে।
মরদেহ দেখতে যাচ্ছেন স্থানীয়রা। ছবি: আরিফ জাহানডাবইর এলাকার ধানক্ষেতের প্রায় ৩০ থেকে ৩৫ ফুটের মধ্যে এলোমেলোভাবে পড়েছিলো চারটি মরদেহ। পরনে শার্ট, গেঞ্জি ও টাউজার ধরনের পোশাক। মরদেহের পাশে কয়েকটি ব্যাগও পড়ে থাকতে দেখা যায়। তবে স্থানীয়রা একান্ত প্রয়োজন ছাড়া পাথার বলে পরিচিত বিশাল এই ডাবইর এলাকায় যাতায়াত করেন না।

সোমবার (০৭ মে) সকালের দৃশ্যটা ছিলো একেবারে ভিন্ন। অনুমান ৯টার ঘটনা হবে। কে বা কারা বোরো ক্ষেতের ফসল দেখতে জমিতে যান। সেখানে গিয়ে দেখতে পান এলোমেলোভাবে ক্ষেতের পানিতে চারজন পুরুষের গলা কাটা ও হাত-পা বাঁধা মরদেহ পড়ে রয়েছে। দৃশ্যটি চোখের পড়ার সঙ্গে সঙ্গে আৎকে ওঠেন।
মরদেহ দেখতে যাচ্ছেন স্থানীয়রা। ছবি: আরিফ জাহানমুহুর্তে খবরটি চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। আশপাশের গ্রামের লোকজন ক্ষেতের আইল ধরে ছুটে আসেন সেখানে। নারী-পুরুষের পাশাপাশি বিভিন্ন বয়সী লোকজন সেখানে ভিড় করতে থাকেন। ক্রমেই সেখানে মানুষের যেন ঢল নামে। খবর পেয়ে ছুটে যান আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। সবাই নেমে পড়েন মরদেহ উদ্ধারের কাজে।

জমিলা বেগম নামে এক নারী বাংলানিউজকে বলেন, ‘এতো ভয়ানক ঘটনা আগে কখনও দেখিনি। দু’জনের মরদেহ দেখতে পেরেছি। এরপর বাকি দু’জনের মরদেহ দেখার সাহস হারিয়ে ফেলি। পরে দূরে দাঁড়িয়ে লোমহর্ষক ঘটনার দৃশ্য দেখার চেষ্টা করি।

কৃষক আবুল কালাজ আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, ‘জীবনে বেশ কয়েকটা খুন খারাপি দেখেছি। কিন্তু একত্রে চারজনে খুন হওয়া দেখিনি। তারমধ্যে আবার সবাইকে গলা কাটা হয়েছে। হাত-পা বাঁধা হয়েছে। এতো মর্মান্তিক খুন আর মরদেহগুলো দেখে বুকের ভেতর এদিকে একসঙ্গে চারটি খুনের ঘটনা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকেও ভীষণ ভাবিয়ে তুলেছে। ঘটনার গুরুত্ব অনুধাবন করে জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) আলী আশরাফ ভূঁইয়া জানার পরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে যান। জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের টিম ছাড়াও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম সেখানে ছুটে যায় এবং খুনের রহস্য উদঘাটনে মাঠে কাজ করছেন।জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তীর কথায় তেমনটাই ওঠে আসে।

তিনি বাংলানিউজকে জানান, হত্যাকাণ্ডের মোটিভ উদ্ধারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম মাঠে কাজ করছে।
শিবগঞ্জে ধান ক্ষেত থেকে গলাকাটা ৪ মরদেহ উদ্ধার
সোমবার সকালে মরদেহ চারটি উদ্ধার করা হয়। সকালে ডাবইর এলাকার একটি ধানক্ষেতে চারজনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানার পুলিশসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা মরদেহগুলো উদ্ধার করে।
এদিকে নিহতদের মধ্যে দু’জনের পরিচয় মিলেছে। তারা হলেন একই উপজেলার আটমুল ইউনিয়নের কাথগাড়া গ্রামের আছির উদ্দিনের ছেলে পান বিক্রেতা সাবরুল ইসলাম সাবু(৩৫)ও একইগ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে রংমিস্ত্রী জাকিরুল ইসলাম (৩২)। বাকি দু’জনের পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।বাংলানিউজ

About admin

Check Also

জীবিত শিশু বদলে মৃত দেওয়ার দায় স্বীকার চাইল্ড কেয়ারের

চট্টগ্রামে জীবিত শিশু বদলে মৃত শিশু দেওয়ার দায় স্বীকার করেছে বেসরকারি হাসপাতাল চাইল্ড কেয়ার।৮ মে, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *