Home | রাজনীতি | বিমান কার্যালয়ে ছিঁড়ে ফেলা হলো বঙ্গবন্ধুর পোস্টার-ব্যানার

বিমান কার্যালয়ে ছিঁড়ে ফেলা হলো বঙ্গবন্ধুর পোস্টার-ব্যানার

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রধান কার্যালয় বলাকা ভবনের দেয়ালে ও আশপাশে টানানো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ও শোক দিবসের পোস্টার-ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। গত দু’রাতে বড় মাপের দুটি ব্যানারও সরিয়ে ফেলা হয়েছে। কিছু লম্বাকৃতির ব্যানারও আংশিক কেটে ফেলা হয়েছে। এমনকি বলাকার ভেতরেও বেশকিছু পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে শোকের মাসে স্বাধীনতাবিরোধী চক্র এই অপকর্ম করেছে।

এ ঘটনা নিয়ে রোববার বিকেলে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে কেবল আফসোস করতেই দেখা গেছে। তারা বলছে, শ্রম ও বিমান মন্ত্রণালয় কর্তৃক চাপিয়ে দেয়া এসেনসিয়াল সার্ভিস অর্ডারের কারণে কেউ কোনো প্রতিবাদ করতে সাহস পায়নি। আর শ্রমিক ইউনিয়নগুলোর সার্বিক সুবিধা-অসুবিধা দেখায় নিয়োজিত বিমানের শিল্প সম্পর্ক বিভাগের কর্মকর্তারাও এ বিষয়ে নির্বিকার।

সরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে কীভাবে জাতির জনকের পোস্টার-ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা হলো এমন প্রশ্নের জবাবে বিমানের শিল্প সম্পর্ক বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. মজিবুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, আমরা এই দুঃখজনক ঘটনাটি শুনেছি। তবে এ বিষয়ে নতুন করে কোনো শ্রমিক সংগঠন আমাদের শাখায় অভিযোগ করেনি।

তবে কয়েক মাস আগে বাংলাদেশ বিমান এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন (রেজি: ১৯১৭) তাদের কিছু পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছিল। ওই পোস্টার ছেড়ার সঙ্গে জড়িতদের আমরা শনাক্তের চেষ্টা করে যাচ্ছি। আর নতুন করে ব্যানার চুরি ও পোস্টার ছেড়ার বিষয়ে অভিযোগ পেলে আমরা জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা করব।

সূত্র জানায়, চাপিয়ে দেয়া এসেনসিয়াল সার্ভিস অর্ডারের কারণে প্রতিবাদ তো দূরের কথা চাকরি হারানোর ভয়ে কেউ কোনো কথা বলতে রাজি নন। তবে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি এর প্রতিকার চান। কেউ কেউ বলেছেন আমরা অফিস খুললেই এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করব।

About sarah

Check Also

‘আমাদের নেত্রী একবারও বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন নাই’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে একবারও বক্তব্য দেননি বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ …

Leave a Reply