Breaking News
Home | আন্তর্জাতিক | হিন্দুদের গণকবর: মিয়ানমারের কাছে বিচার দাবি ভারতের

হিন্দুদের গণকবর: মিয়ানমারের কাছে বিচার দাবি ভারতের

মিয়ানমারে চলমান রোহিঙ্গা সংকটের মধ্যেই দেশটির রাখাইন রাজ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের যে গণকবর পাওয়ার খবর বেরিয়েছে তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারত। সেইসঙ্গে এই ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের বিচার দাবি করেছে নয়াদিল্লি।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভীশ কুমার শুক্রবার এ দাবি জানান। তিনি বলেন, মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলরের দফতর থেকে প্রকাশিত বিবৃতির মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি, গণকবরের সব লাশ হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের। এ ছাড়া গণমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত খবরও তারা প্রত্যক্ষ করেছেন বলে উল্লেখ করেন।

তার দেশ যেকোনো ধরনের সন্ত্রাসী কাজের নিন্দা জানায় উল্লেখ করে কুমার বলেন, ‘চলমান দ্বন্দ্বে বেসামরিক লোকদের টার্গেট করা হচ্ছে এমন যেকোনো ধরনের সন্ত্রাসী কাজের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি আমরা। এই অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের সরকার বিচারের আওতায় আনতে পারবে বলে আমরা আশা করছি। আমরা এও আশা করছি, সংশ্লিষ্টদের পরিবারকে নিরাপত্তাসহ সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে।’
প্রসঙ্গত, মুসলিম অধ্যুষিত রাখাইন রাজ্যে সম্প্রতি একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে এবং সেই গণকবরে থাকা সব লাশ হিন্দুদের বলে জানায় মিয়ানমার সরকার।

রাভীশ কুমার আরো বলেন, ‘মিয়ানমারের আক্রান্ত লোকদের জন্য আমরা উদ্বেগ জানিয়েছি। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেওয়া উচিত।’
এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ভারত ও বাংলাদেশ রোহিঙ্গা ইস্যুর ওপর নজর রাখছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

About admin

Check Also

নেপালকে হুমকি দিলেন ভারতের হতাশ সেনাপ্রধান

ভারতের পুনেতে অনুষ্ঠিত ‘ভারতের পরিকল্পিত সামরিক মহড়ায়’ অংশগ্রহণ থেকে নেপাল শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়ানোয় ভারতের ব্যর্থ নেতৃবৃন্দ দারুণ ক্ষুব্ধ হয়েছেন। বিমসটেকের আরেক সদস্য দেশ থাইল্যান্ডও ভারতের পরিকল্পনাকে উপহাস করেছে।নেপাল নিজেও বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টি-সেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কোঅপারেশানের (বিমসটেক) সদস্য। সার্কের বদলে এই সংস্থাকে সক্রিয় করতে চায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *