Home | বিশেষ প্রতিবেদন | মুসলিমরা ‘নিম্ন প্রজাতির প্রাণী’ কারন তারা গরু খায় – কিশোর আলো

মুসলিমরা ‘নিম্ন প্রজাতির প্রাণী’ কারন তারা গরু খায় – কিশোর আলো

ছবি : কিশোর আলো, জুলাই ২০১৭, পৃষ্ঠা ৯৬

“এবার সমগ্র মুসলমান জাতিকে ‘সবচেয়ে নিম্ন প্রজাতির প্রাণী’ বলে কচি শিশু-কিশোরদেরকে হিন্দুত্ববাদী গালি শেখাচ্ছে ‘প্রথম আলো’র কিশোর ম্যাগাজিন ‘কিশোর আলো’। ইসলাম বিদ্বেষী পত্রিকা প্রথম আলোর শিশু কিশোরদের ম্যাগাজিন কিশোর আলোর জুলাই মাসের সংখ্যার ৯৬ পৃষ্ঠায় গরুকে ‘সবচেয়ে সেরা জীব চিহ্নিত করে একটি কার্টুন আঁকা হয় এবং গরুর গোস্ত খাওয়া মুসলিমদের নিম্ন প্রজাতির প্রাণী হিসেবে অভিহিত করে কিশোর আলো.. হিন্দু ধর্মাচার অনুযায়ী গরু কে বলা হচ্ছে ‘সবচেয়ে সেরা জীব! মূলত ভারতের বর্তমান চরম সাম্প্রদায়িক হিন্দুত্ববাদী সরকার ‘বিজেপি-আরএসএস’ গোষ্ঠীর চালিত মুসলিম বিরোধী ‘গো-রক্ষা’ নামক সন্ত্রাসী আন্দোলনের স্লোগান এটি।

পবিত্র কুরবানীর ঈদকে সামনে রেখে মুসলমানদের গরু কোরবানী দেয়াকে উপহাস করে ইসলামের মৌলিক বিধান এবং মুসলমানদের দুই ঈদের একটি “ঈদুল আজহা” তথা ইসলামের বিধি-বিধান সম্পর্কে কচি শিশু-কিশোরদের মনে হেয় প্রতিপন্ন মানসিকতা সৃষ্টি করাই এর উদ্দেশ্য- তাতে কোন সন্দেহ নেই। অথচ দুর্গাপূজা থেকে শুরু করে বড়দিন সহ আর কোন ধর্মাবলম্বীদের কোন আচার-অনুষ্ঠান-উৎসব সম্পর্কে ইচ্ছে করে হোক বা অনিচ্ছা করে হোক কোনধরণের বিরূপ মন্তব্য করেছে বলে মনে হয় না। সেসব নিয়ে এদের কত উচ্চাশ, আর কত সতর্কতা, কত সেনসিটিভিটি! শুধুমাত্র মুসলমানদের আচার-অনুষ্ঠান নিয়েই এদের যত বিরূপ হাসি কৌতুক! নিঃসন্দেহে এটা উদ্দেশ্যমূলকভাবে ইসলামের প্রতি ঘৃণা আর মুসলমানদের প্রতি নিম্ন ধারণার বহিঃপ্রক্রাশ- এতে কোন সন্দেহ নেই। “প্রথম আলো” গ্রূপ কর্তৃক এরকম ইসলাম বিদ্বেষী প্রচারণা এবং নিম্নশ্রেণীর হাসি-কৌতুক এবারই প্রথম নয়। এর আগেও তারা অসংখ্যবার এরকম ঘৃণ্য কান্ড করেছে, এবং বার বার নানা ছলে-বলে-কৌশলে ম্যানেজ করে পার পেয়ে গেছে।

কয়েকবার যখন এসব ঘটনায় দেশবাসী তাদের বিরুদ্বে ফুঁসে উঠেছে তখন প্রতিবারই এসবকে “অনিচ্ছাকৃত ভুল ” ইত্যাদি বলে ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে গেছে। কিন্তু তাদের অন্তর যে কতটা ইসলাম বিদ্বেষী অন্ধকারে আচ্ছন্ন, তাদের মন-মানসিকতা থেকে সে বিদ্বেষ কখনোই দূর হয়নি এবং তারা কখনো নিজেদের বদলাবার পাত্র নয়- তা বারবার এসব ঘটনা থেকে পরিষ্কার। এদের একটাই প্রাপ্য- তা হোল ইসলাম বিদ্বেষী প্রচারণা এবং ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত দেয়ার অপরাধে উপযুক্ত শাস্তি, আর তার সাথে ইসলাম প্রিয় দেশবাসী কর্তৃক এদের সকল প্রকাশনা এবং প্রোডাক্ট সম্পূর্ণ বয়কট করে ঈমানী ক্ষোভ আর স্পিরিট এর প্রকাশ ঘটানো। বিশেষ করে নতুন প্রজন্ম তথা কচি শিশু-কিশোরদেরকে এদের সমস্ত কিছু থেকে দূরে রাখা একান্ত কর্তব্য। তা না হলে আগামীতে আরো ভয়ঙ্কর এবং আরো সরাসরি ইসলাম বিরোধী প্রচারণা নিয়ে এরা হাজির হবে- তাতে সন্দেহ নেই। আর এদের সূক্ষ্য প্রচারণায় আপনার আমার অতি আদরের কোন শিশু-কিশোরই কয়েকবছর পরে মনেপ্রাণে ভয়ঙ্কর ইসলাম বিদ্বেষী নাস্তিক মুরতাদ হিসেবে আবির্ভূত হবে, পিত-মাতার ধর্ম, আচার-উৎসব এবং সমাজকে ঘৃণা করবে, মুসলমান হবার কারণে নিজের পিতা-মাতা সহ আমাদেরকে “সবচেয়ে নিম্ন প্রজাতির প্রাণী” বলে গালি দেবে, গরুর চাইতেও অধম বিবেচনা করবে- তখন আর কিছুই করার থাকবে না”

উল্লেখ্য এর আগে হজরত মুহাম্মাদ (সঃ) কে কুটুক্তি করার কারণে প্রথম আলোর রম্য ম্যাগাজিন আলপিনকে ব্যান করেছিলো সরকার..বায়তুল মোকারমের তৎকালীন খতিব ওবায়দুর রহামানের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে ওই সময় পার পেয়ে যায় প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান।

About sarah

Check Also

সৌদিতে স্ত্রী তালাকের ভুয়া নিউজ সরিয়ে নিল আন্তর্জাতিক মিডিয়া

মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক সংবাদ সংস্থা গাল্ফ নিউজের বরাত দিয়ে ভারতের জাতীয় পত্রিকাগুলো একটি মিথ্যা সংবাদ ছড়িয়ে …

Leave a Reply