Breaking News
Home | সারাদেশ | অস্ত্রের সঙ্গে লাল মরিচের গুঁড়োও রাখছে ছিনতাইকারীরা

অস্ত্রের সঙ্গে লাল মরিচের গুঁড়োও রাখছে ছিনতাইকারীরা

নগরীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভেনিউর বানিয়াপাড়া অ্যাপোলো হাসপাতালের সামনে থেকে বিদেশি পিস্তল, ওয়ান শ্যুটারগান, ৭ রাউন্ডগুলি, লাল মরিচের গুঁড়োসহ পাঁচ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ সময় ছিনতাইকারীদের ব্যবহৃত প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়।

র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মিমতানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে একটি ছিনতাইকারী গ্রুপের কিছু সদস্য সশস্ত্র অবস্থান নিয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) বিকেল সাড়ে পাঁচটায় লে. কমান্ডার আশেকুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় চান্দগাঁও থানার উত্তর মোহরার মো. মুছুবের ছেলে মো. মোর্শেদ আলম (২৮), হাটহাজারীর পশ্চিম জোরাইলের মাহাবুবুল আলমের ছেলে মো. জাবেদ (২৮), চাঁদপুরের শাহরাস্তির উনকিলার মোশারফ হোসেনের ছেলে শামীম হোসেন (২৯), চান্দগাঁওয়ের উত্তর মোহরার নুরুল আলমের ছেলে মো. জাহেদুল আলম (৩৪) ও উত্তর মোহরার মার্শাল উকিলের বাড়ির মো. মনসুর আলমের ছেলে মো. মামুনকে (২২) প্রথমে আটক করা হয়।

ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল জব্দ
এরপর তাদের দেহ তল্লাশি করে একটি বিদেশি পিস্তল, ২টি ওয়ান শ্যুটারগান, ৭ রাউন্ড গুলি, ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত লাল মরিচের গুঁড়া উদ্ধার করা হয়। একই সঙ্গে ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল জব্দসহ আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আসামি এবং উদ্ধার করা অস্ত্রশস্ত্রসহ গাড়িগুলো পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে ১৮৭৮ সালের আর্মস অ্যাক্টের ১৯-অ ধারা অনুযায়ী থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান মিমতানুর রহমান।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম মহানগরীতে সশস্ত্র ছিনতাইকারীদের দৌরাত্ম্য আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গেছে। নির্জন সড়কগুলোতে অস্ত্র ঠেকিয়ে ছিনতাই করে প্রাইভেট কার, মোটরসাইকেলে দ্রুত গা-ঢাকা দিচ্ছে ছিনতাইকারীরা।

About admin

Check Also

১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার সাক্ষী পুলিশ কর্মকর্তা হেলালের সড়কে মৃত্যু

ফেনীতে সড়কে নিহত হয়েছেন আলোচিত ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী পুলিশ পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন …