Breaking News
Home | সারাদেশ | ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে ২৫ দিন জেলে, অবশেষে জামিন

ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে ২৫ দিন জেলে, অবশেষে জামিন

আশুলিয়ায় সড়কের পাশ থেকে অচেতন অবস্থায় এক ধর্ষিতাকে উদ্ধারকারী সেই দুই যুবকের জামিন মিলেছে। বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার জেলা ও দায়েরা জজ আদালত এ জামিন প্রদান করেন। ২৫ দিন কারাগারে থাকার পর ইমরান ও সোহাগ আজ জামিন পেলো। তারা আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার বাসিন্দা।

ধর্ষিতার পরিবার জানায়, গত ১২ জানুয়ারি দুপুরে রাসেল নামের এক যুবক জামগড়া এলাকা থেকে কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে সন্ধ্যার দিকে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের জিরানী এলাকায় অচেতন অবস্থায় কিশোরীকে ফেলে রেখে যায় বখাটেরা। এসময় স্থানীয়রা কিশোরীর সঙ্গে থাকা একটি ভিজিটিং কার্ডের সূত্র ধরে প্রতিবেশী ইমরান ও সোহাগকে জানায়। খবর পেয়ে ওই দুই যুবক ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন ও অভিযুক্ত ধর্ষণকারী রাসেলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

ঘটনার প্রায় এক মাস পর গত ১১ ফেব্রুয়ারি পুলিশ ওই দুই যুবককে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে ওই ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায়। পুলিশ গ্রেফতারের বিষয়ে প্রধান আসামির আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিকে দায়ি করেন। যা নিয়ে ভুক্তভোগী কিশোরী ও তার পরিবার আপত্তি জানালেও আমলে নেয়নি পুলিশ। পরে যমুনা টেলিভিশন এনিয়ে গত ৬ মার্চ একটি প্রতিবেদন প্রচার করে। যারপর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রশাসনের বিভিন্নস্থরে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে।

সোহাগের আইনজীবী ওয়াজেদ আলী জানান, আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত সোহাগ ও ইমরানের জামিন মঞ্জুর করে। এসময় আদালতে বাদী ও ভিকটিম উপস্থিত ছিলেন।

About admin

Check Also

১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার সাক্ষী পুলিশ কর্মকর্তা হেলালের সড়কে মৃত্যু

ফেনীতে সড়কে নিহত হয়েছেন আলোচিত ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী পুলিশ পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন …