Home | সারাদেশ | তানিয়ার ভর্তিসহ প্রতিমাসে বৃত্তির দায়িত্ব নিলেন জাকির

তানিয়ার ভর্তিসহ প্রতিমাসে বৃত্তির দায়িত্ব নিলেন জাকির

রাজশাহী নগরীর ডাঁশমারী এলাকার নূরুল ইসলামের মেয়ে তানিয়া মুস্তারীকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিসহ তাকে প্রতিমাসে বৃত্তি দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন।

শনিবার রাত পৌনে ৯টায় জাগো নিউজটি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এসএম জাকির হোসাইন। এর আগে সন্ধ্যায় ৬টা ৪০ মিনিটে ‘ঢাবিতে ৫৪তম হয়েও ভর্তি অনিশ্চিত তানিয়ার’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রচার হয়। সেই সংবাদ ছাত্রলীগ নেতা এসএম জাকির হোসাইনের সুনজরে আসে।

জাকির জাগো নিউজকে বলেন, তানিয়াকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ফি, হলে তুলে দেয়া এবং প্রতিমাসে তার লেখাপড়া বাবদ খরচ হিসেবে বৃত্তির ব্যবস্থা করে দেব।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরিক্ষায় ‘খ’ ইউনিটে ৫৪তম হয়েছেন রাজশাহীর তানিয়া মুস্তারী।

তানিয়া মুস্তারীর বাবা নূরুল ইসলাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুরের বিশ্বাস ছাত্রাবাসে সামান্য বেতনে গার্ডের চাকরি করেন। সংসার সামলে তা দিয়ে কোনো মতে মেয়ের পড়ালেখার খরচ চালান তিনি।

নূরুল ইসলাম বলেন, তার তিন মেয়ে। ছেলে নেই। এদের মধ্যে সবার ছোট তানিয়া মুস্তারী। সে এইসএসসি পাস করে ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছে। টাকার অভাবে শুধু ‘খ’ ইউনিটে ফরম তুলেছিল। সেখানে মেধা তালিকায় ৫৪তম স্থান অর্জন করেছে।

তিনি আরও বলেন, ছোটবেলা থেকেই মেয়েটি অত্যন্ত মেধাবী। সে ৫ম ও ৮ম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছে। রাজশাহী দারুস সুন্নাহ দাখিল মাদরাসা থেকে মানবিক বিভাগে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে দাখিলে উত্তীর্ণ হয়েছে। মানবিক বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে রাজশাহী কলেজ থেকে।

মেধাবী শিক্ষার্থী তানিয়া মুস্তারী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার আইনে ভর্তির সুযোগ হয়েছে। বিভাগে সাক্ষাৎকারের জন্য তাকে ডাকা হয়েছে ২২ অক্টোবর।

About admin

Check Also

ইয়ার্কি করতে যেয়ে চোর হয়ে গেলাম, বিদায় পৃথিবী

মৃতদেহের পাশে বিষের খালি বোতল। নিহতদের মুখ দিয়ে তখনও বের হচ্ছে ফেনা ও লালা। তাদের পকেটে চিরকুট, তাতে লেখা, “ মা আব্বা তোমাদের খুব জ্বালিয়েছি, আমাকে মাফ করে দিও। টাকা আমি নিছিলাম ভুল করে, ইয়ার্কি করতে যেয়ে চোর হয়ে গেলাম। তোমরা সবাই মাফ করে দিও, বিদায় পৃথিবী। ’’ এই অবস্থায় ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রাম থেকে রিপন হোসেন (২৮) ও আব্দুল আওয়াল (২৭) নামে দুই বন্ধুর মৃতদেহ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *