Home | ক্যাম্পাস | ‘জামায়াত বা শিবিরের অনুসারী কেউ জবিতে নিয়োগ পাবে না’

‘জামায়াত বা শিবিরের অনুসারী কেউ জবিতে নিয়োগ পাবে না’

সম্প্রতি জবিতে বিভিন্ন পদে নিয়োগ সংক্রান্ত বিতর্কে বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য নিজ কক্ষে ব্রেকিংনিউজের কাছে এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জবি সহকারী প্রক্টর ড. মোস্তফা কামল ও সহকারী প্রক্টর মহিউদ্দিন মাহি এবং জবি প্রগতিশীল সাংবাদিক সমিতির সভাপতি সুব্রত মন্ডল ।

উপাচার্য এ বিষয়ে ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘আমি আমার সময় শুধু আওয়ামী লীগ আর ছাত্রলীগের অনুসারীদের নিয়োগ দিয়েছি। এ নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। আমি স্পষ্ট করে বলছি, আমি থাকাবস্থায় কোনও জামায়াত বা শিবিরের অনুসারী কেউ এ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পাবে না। আমি এদের সাথে চলি না। এদের কোনও স্থান আমার কাছে নেই।’

একসাথে ছাত্রলীগের ১২ নেতাকে চাকরিতে অন্তর্ভুক্ত করা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এমন মন্তব্য করেন জবি উপাচার্য।

এর আগে অভিযোগ উঠেছিল- এক সাথে একাধিক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে কোনও রকম নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই নিয়োগ দিয়েছেন উপাচার্য।

এ প্রসঙ্গে উপাচার্য বলেন, ‘আমাদের নিয়ম আছে যে কোন সময় প্রয়োজন মতো ডেইলি বেসিসে ৫০০/৬০০ টাকা হারে লোক নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়। আমরা নতুন অনেকগুলো বিভাগ খুলেছি। যেখানে আমাদের লোকবল দরকার ছিল। সে চিন্তা করে ২০ হাজার টাকা করে বেতন হারে কয়েকজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। যা এখনও পারমানেন্ট করা হয়নি। এদের যে বেতনের কথা বলা হয়েছে তা একজন কেরানির বেতনের কিছু কম।’

এসময় তিনি দেশের শীর্ষ দৈনিক পত্রিকা ‘প্রথম আলো’তে প্রকাশিত সংবাদের সমালোচনা করে বলেন, ‘প্রথম আলোতে যে কথা লিখেছে তা আমি বলিনি। আমি বলেছি এক ভাবে তারা লিখেছে আরেক ভাবে। আসলে আমার বক্তব্য বিকৃত করা হয়েছে। কারণ, এই প্রতিবেদক (মুসা) নিজে কয়েকবার আমার কাছে এসেছে চাকরি পাওয়ার জন্য। আমি তার কথা শুনিনি বলে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশ করেছেন তিনি।’

জানা যায়, প্রথম আলোতে প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একটি প্রতিবাদলিপি পাঠানো হয়েছে। এতে প্রথম আলোর জবি প্রতিবেদককে শিবির সংশ্লিষ্ট বলে দাবি জানানো হয়েছে।

About admin

Check Also

সভায় যোগ দিতে দেরি,ছাত্রলীগ নেতার থাপ্পড়ে কানের পর্দা ফাটল এক শিক্ষার্থীর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহাম্মদ মুহসীন হলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মারধরে নাঈম ইসলাম নামের এক সাধারণ শিক্ষার্থীর …

Leave a Reply